আসছে Banglalink 4G Internet Speed

বাংলালিংক 4G-এর সাথে নতুন যুগের ইন্টারনেটের জগতে প্রবেশ করতে তৈরি তো?

বাংলাদেশ শীঘ্রই পেতে যাচ্ছে নতুন যুগের ইন্টারনেট এক্সপেরিয়েন্স- 4G! সবচেয়ে দ্রুতগতির এই ইন্টারনেট এক্সপেরিয়েন্স পেতে সকল বাংলালিংক গ্রাহককে তাদের বর্তমান সিমটি 4G সিম-এ রুপান্তরিত করতে হবে।

আপনার সিমটি কি 4G :
আপনার বাংলালিংক সিমটি 4G সমর্থন করে কি না জানতে ‘4G’ লিখে পাঠিয়ে দিন 5000 নাম্বারে (বিনামূল্যে)। এছাড়াও নিকটস্থ বাংলালিংক সার্ভিস/রিটেইল পয়েন্টে যোগাযোগ করে আপনার সিমটি রিপ্লেস করে 4G সমর্থিত সিম নিতে পারবেন (শুধুমাত্র রেগুলার চার্জ প্রযোজ্য)।


4G LTE কী :
★ 4G LTE একটি উচ্চগতির ও উচ্চ ক্ষমতা মোবাইল ডাটা প্রযুক্তি যা আপনাকে দেবে সেরা এবং দ্রুততম ইন্টারনেট এক্সপেরিয়েন্স।

4G-এর সুবিধা কী :
★ মূল পার্থক্য হল ইন্টারনেটের গতি। 4G সংযোগে লাইভ ভিডিও চ্যাট করতে পারবেন কোনো ঝামেলা ছাড়াই।
★ বাংলালিংক 4G ইন্টারনেট স্পিডে ব্রাউজিং, ডাউনলোডিং, ভিডিও ও গান স্ট্রিমিং করতে পারবেন সহজেই!
★ এছাড়াও মাল্টিপ্লেয়ার অনলাইন গেমগুলির জন্য ভালো রেসপন্স টাইম পাবেন, যা আগের চাইতে অনেক ভালো হবে।
★ অর্থাৎ, বাংলালিংক গ্রাহকরা 4G-তে পাবেন একদম নতুন অভিজ্ঞতা!

4G সার্ভিসের জন্য করণীয় :
★ আপনার 4G সিমসহ (USIM নামেও পরিচিত) 4G সক্রিয় ডিভাইস থাকতে হবে এবং 4G LTE সার্ভিসের সুবিধা পেতে 4G নেটওয়ার্ক কভারেজের আওতায় থাকতে হবে।

আপনার হ্যান্ডসেট 4G Support করে কিনা জানতে নিচের পদ্ধতি অনুসরণ করুন :
★ আপনার ডিভাইসটি 4G সক্রিয় কিনা তা জানার জন্য নিম্নলিখিত পদ্ধতিটি অনুসরণ করতে হবে ↓

আপনার ফোনের IMEI নাম্বারটি জানতে *#06* ডায়াল করুন তারপর ভিজিট করুন www.imei.info। এখানে আপনার ফোনের IMEI নাম্বারটি প্রবেশ করিয়ে জেনে নিন আপনার ফোনটি 4G সমর্থিত কি না।

অথবা

এই পদ্ধতি অনুসরণ করুন - প্রথমে, “Settings” > Mobile Network or Preferred Network Type-এ যান, এখানে আপনি 4G, 3G ও 2G নেটওয়ার্ক অপশন দেখতে পারবেন। এখানে যদি 4G/LTE থাকে তবে আপনার ফোনটি 4G নেটওয়ার্ক সমর্থন করে!
Next Post Previous Post
No Comment
Add Comment
comment url